“জ্বালানির মূল্য যৌক্তিক ও সহনীয় রাখতে জ্বালানি মিশ্রণ বহুমুখী করা হচ্ছে” -বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

“জ্বালানির মূল্য যৌক্তিক ও সহনীয় রাখতে জ্বালানি মিশ্রণ বহুমুখী করা হচ্ছে” -বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

ঢাকাঃ ২৯/০৭/২০১৭

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন,জ্বালানির মূল্য যৌক্তিক ও সহনীয় রাখতে জ্বালানি মিশ্রণ বহুমুখী করা হচ্ছে। জ্বালানি নিরাপত্তা বিধান ও ঘরে ঘরে সাশ্রয়ি বিদ্যুৎ পৌছে দেয়াই সরকারের মূল লক্ষ্য। প্রাথমিক জ্বালানি সরবরাহে প্রাকৃতিক গ্যাসের উৎপাদন বাড়ানোর সাথে সাথে এলএনজি, এলপিজি, কয়লা, স্থল এবং অগভীর-গভীর সমুদ্রে গ্যাস অনুসন্ধান ও অবকাঠামো নির্মাণের উপর গুরুত্ব দেয়া হয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী আজ মিলিটারি ইনিস্টিটিউট অব সাইন্স এন্ড টেকনোলজিতে “ Energy Scenario and Prospect of Petroleum and Mining Engineering in Bangladesh “ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ সব কথা বলেন। তিনি বলেন, আমাদের ব্যাপ্তি বাড়ছে। সম্ভাবনা উজ্জ্বল থেকে উজ্জ্বলতর হচ্ছে। যার যার অবস্থান থেকে পেশাদারি মনোভাব নিয়ে এগুলেই নির্ধারিত সময়ের আগেই বাংলাদেশ উন্নত দেশে পরিণত হবে। প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রায় ৭০ ভাগ গৃহে এখন এলপিজি ব্যবহৃত হচ্ছে। বাংলাদেশে গভীর সমুদ্র বন্দর থাকলে এলপিজির মূল্য আরো কম হতো। তবে এর মূল্য কমানোর উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। এ সময় তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে পেট্টোকেমিক্যাল ইন্ডাস্টিজের রয়েছে উজ্জ্বল সম্ভাবনা। এ সম্ভাবনাকে বাস্তব রূপ দিতে প্রয়োজন প্রতিশ্রুতিশীল পেট্টোলিয়াম ও মাইনিং ইঞ্জিনিয়ার। ব্যবহারিক শিক্ষার উপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় সংশ্লিষ্টদের জন্য ইন্টার্ণশীপ-এর ব্যবস্থা করেছে। বিশ্ববিদ্যালইয়সমূহের শিক্ষার্থীরা এ সুযোগ কাজে লাগাতে পারে।

সেমিনারটিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূ-তত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক ডঃ বদরুল ইমাম বাংলাদেশে গ্যাসের সম্ভাবনা শীর্ষক ভূতাত্ত্বিক বিশ্লেষণ ও পাওয়ার সেলের মহাপরিচালক প্রকৌশলী মোহাম্মদ হোসেন বাংলাদেশের বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের অর্জন ও ভবিষ্যত কর্মপরিকল্পনা নিয়ে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। উক্ত অনুষ্ঠানে অন্যানের মাঝে এমআইএসটি-এর কমান্ড্যান্ট মেজর জেনারেল মোঃ আবুল খায়ের, এনডিসি,পিইঞ্জ বক্তব্য রাখেন।